রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:২৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বান্দরবানে সকল সম্প্রদায়ের অংশগ্রহণে পহেলা বৈশাখ পালিত সরকারী ছুটিকে কাজে লাগিয়ে বান্দরবানে রাতের আধারে পাহাড় কাটার মহোৎসব পাহাড়ে বর্ণিল আয়োজনে শুরু হল সাংগ্রাই উৎসব যৌথ অভিযানের কারণে রুমা উপজেলায় পর্যটক ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা জারী নতুন ভোরকে স্বাগত জানিয়ে পাহাড়ে শুরু হলো বৈসাবী উৎসব বান্দরবানে যৌথ বাহিনীর অভিযানে আরো ৩ জন গ্রেফতার বান্দরবানের রুমায় সোনালী ব্যাংক লুট, ম্যানেজার অপহরণ বান্দরবানে বিপন্ন প্রজাতির ২টি ভাল্লুকের বাচ্চা উদ্ধার, আটক- ১ ফরেস্টার সাজাদ্দুজামান সজল হত্যার প্রতিবাদে বান্দরবানে মানববন্ধন বান্দরবানের দূর্গম এলাকায় সেনাবাহিনীর চিকিৎসা সেবা প্রদান

বান্দরবানে এক ভূয়া চক্ষু চিকিৎসক গ্রেফতার

সোহেল কান্তি নাথ, নিজস্ব প্রতিনিধি বান্দরবান:
বান্দরবানে চক্ষু চিকিৎসার নামে প্রতারণার দায়ে তাফহিমুল হোসাইন (৪০) নামে এক ভূয়া চিকিৎসককে গ্রেফতার করা হয়েছে। বৃহষ্পতিবার বিকালে শহরের টাইগার এলাকার রোজ ভ্যালী রিসোর্ট থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত তাফহিমুল ঠাকুরগাঁও জেলার হরিপুর উপজেলার বরমপুর গ্রামে এরফান আলীর ছেলে।

ভ্রাম্যমান আদালতসূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত তাফহিমুল দীর্ঘদিন যাবৎ বান্দরবানের বিভিন্ন এলাকায় চক্ষু ক্যাম্প পরিচালনা করে আসছিলেন। প্রচারপত্রে এবং প্রেসক্রিপশন প্যাডে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক না হয়েও চক্ষু বিশেষজ্ঞ পদবী ব্যবহার, অনুমতিবিহীন চক্ষু শিবির পরিচালনা, রোগীদের কাছ থেকে অর্থ আদায় এবং যে হাসপাতালে তারা কর্মরত নয় সে সব হাসপাতালের ঠিকানা ব্যবহার করে প্রচারণা চালিয়ে রোগীদের সঙ্গে প্রতারণা করার অভিযোগের ভিত্তিতে বৃহষ্পতিবার বিকালে জেলা প্রশাসনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট অরূপ রতন সিংহের আদালত শহরের টাইগার পাড়ার রোজভ্যালী রিসোর্ট এ অভিযান চালায়। এসময় ভূয়া চক্ষু চিকিৎসক তাফহিমুল এর সনদপত্র যাচাই বাছাই করা হলে সনদপত্র ভূয়া প্রমাণিত হওয়ায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে দীর্ঘদিন ধরে বিএমডিসির ভূয়া সনদ বানিয়ে বিভিন্ন সময় চক্ষু ক্যাম্প করে টাকা আর্থসাৎ করে আসছিল বলে স্বীকার করেন। অভিযানে বান্দরবান সিভিল সার্জন এর প্রতিনিধি ডা: আলমগীর হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট অরূপ রতন সিংহ বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা টাইগার পাড়া এলাকা থেকে এক ভূয়া চক্ষু বিশেষজ্ঞকে গ্রেফতার করেছি। সে বিএমডিসির নিবন্ধনকৃত চক্ষু বিশেষজ্ঞ পরিচয়ে দীর্ঘদিন চক্ষু ক্যাম্প করে সাধারণ রোগীদের কাছ থেকে টাকা আর্থসাৎ করে আসছিল। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ মেডিক্যাল এবং ডেন্টাল কাউন্সিলর আইন ২০১০ এর ২৮ (৩) ধারায় অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় ভূয়া চিকিৎসক তাফহিমুল হোসাইনকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়েছে।

পোস্টটি শেয়ার করুন:

আপনার মতামত দিন


© All rights reserved © 2021 Dainik Natun Bangladesh
Design & Developed BY N Host BD