রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৪৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বান্দরবান বিশ্ববিদ্যালয়ে বসন্ত ও পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত উদ্ধার হওয়া হারানো ফোন ও প্রতারণার টাকা হস্তান্তর করেছে এপিবিএন জেলা শিক্ষা বিভাগকে হারিয়ে জয়লাভ করেন বান্দরবান জেলা পুলিশ দল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন শরণ এর উদ্যোগে মাতৃভাষা দিবস পালন বান্দরবানে বারি উদ্ভাবিত কৃষি যন্ত্রপাতির পরিচিতি ও প্রশিক্ষণ অনুষ্টিত বান্দরবানে পর্যটকবাহী বাস উল্টে আহত ২০ পর্যটক বান্দরবানে নানা আয়োজনে চলছে সনাতনী ধর্মালম্বীদের সরস্বতী পূজা ভালোবাসা দিবস উপলক্ষ্যে পর্যটকদের ফুল দিয়ে বরণ করলেন প্রথমআলো বন্ধুসভা বান্দরবানে পার্বত্য বক্সিং বাছাই ফ্রেন্ডলি ম্যাচ অনুষ্ঠিত বান্দরবানে মিসকি খাল পরিচ্ছন্নতা অভিযান

রোয়াংছড়িতে ফিরে আসা বাসিন্দাদের মাঝে মানবিক সহায়তা প্রদান

সোহেল কান্তি নাথ, নিজস্ব প্রতিনিধি বান্দরবান:
বান্দরবানের রোয়াংছড়ির দূর্গম বিভিন্ন পাড়ায় ফিরে আসা বাসিন্দাদের মাঝে সেনাবাহিনী ও জেলা পরিষদের উদ্যোগে মানবিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। রবিবার (২৬ নভেম্বর) সকালে উপজেলার ক্যাপ্লাং ও পাইক্ষ্যং পাড়া এলাকায় উপস্থিত থেকে এই মানবিক সহায়তা প্রদান করেন বান্দরবান সেনা রিজিয়নের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল গোলাম মহিউদ্দিন আহমেদ এসজিপি, এনডিসি, এএফডব্লিউসি, পিএসসি, পিএইচডি। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বান্দরবান পার্বত্য পরিষদের চেয়ারম্যান ও শান্তি প্রতিষ্ঠা কমিটির সভাপতি ক্য শৈ হ্লা, সেনাবাহিনীর সদর জোনের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মাহমুদুল হাসান, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ও শান্তি প্রতিষ্ঠা কমিটির সদস্য সচিব কাঞ্চনজয় তঞ্চঙ্গ্যা, রোয়াংছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান চহাইমং মার্মা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার খোরশেদ আলম,  রোয়াংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল কালাম, রোয়াংছড়ি সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মেহ্লাঅং মার্মা, শান্তি প্রতিষ্ঠা কমিটির সদস্য ও বম সোশ্যাল কাউন্সিলের সভাপতি লালজার বমসহ সেনাবাহিনীর সদস্য ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। পরে খামতাং পাড়া, ক্যাপ্লং পাড়া ও পাইক্ষ্যং পাড়ার ১শ ১০ পরিবারের মাঝে শুকনা খাবার, চাল, ক্রীড়া সামগ্রী, শীতবস্ত্র বিতরণ ও নগদ অর্থ প্রদান করা হয়।

মানবিক সহায়তা প্রদানকালে রিজিয়ন কমান্ডার বলেন, পাহাড়ে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। কুকিচিন এর ভয়ে দূর্গম এলাকার বিভিন্ন পাড়ার বাসিন্দারা দীর্ঘদিন পালিয়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছিল। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় তারা নিজ এলাকায় ফিরে এসেছে। ফিরে আসা বাসিন্দারা যেন শান্তিপূর্ণভাবে নিজ এলাকায় বসবাস করতে পারে সে জন্য আমাদের আজকেই এই উদ্যোগ। তিনি আরো বলেন, দীর্ঘদিন ধরে তারা কাজ কর্ম করতে না পারায় পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করতেছে। তাদের জীবন মান স্বাভাবিক করতে এই ধরনের সহায়তা অব্যাহত থাকবে বলেও জানান সেনাবাহিনীর এই কর্মকর্তা।

পোস্টটি শেয়ার করুন:

আপনার মতামত দিন


© All rights reserved © 2021 Dainik Natun Bangladesh
Design & Developed BY N Host BD